সারা রাজ্যে কৃষি দপ্তর, গ্রন্থাগার সহ বিভিন্ন দফতরে কয়েক হাজার চাকরি, দীর্ঘদিনের বেকারদের জন্য সুখবর মমতার

Jobs in various WB departments including agriculture department library

বিগত কয়েকমাস ধরেই বিভিন্ন ক্ষেত্রে নিয়োগ দুর্নীতির কথা উঠে আসছে, ফলত রাজ্য রাজনীতি এখন বেশ টালমাটাল অবস্থায় তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। একের পর এক অস্বচ্ছ নিয়োগের মামলা উঠে আসছে। এমতাবস্থায় সম্প্রতি সংখ্যালঘু অধ্যুষিত মুর্শিদাবাদ জেলার সাগরদিঘি উপনির্বাচনে হেরেছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল। এখানকার ফলাফল বেশ জম্পেশ ধাক্কা দিয়েছে মুখ্যমন্ত্রীকে।

তাই পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে মানুষের মন জয় করতে একেবারে মরিয়া হয়ে উঠেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের বিভিন্ন জেলাতে হবে কর্মী নিয়োগ, এমনটাই জানালেন তিনি।

রাজ্যের বিভিন্ন মাদ্রাসাগুলোতে শিক্ষক নিয়োগ

সোমবার বিধানসভায় মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে, মুখ্যমন্ত্রী জানান, রাজ্যজুড়ে মাদ্রাসাগুলোতে শিক্ষক নিয়োগ করতে চলেছে রাজ্য সরকার। মোট ১,৭৩৯ টি
শিক্ষক পদে নিয়োগ করা হবে। শুধু মাদ্রাসা নয়, অন্যান্য দপ্তরেও শতাধিক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার।

মোট ২৭২১ সরকারি পদে নিয়োগ

জানানো হয়েছে, বিভিন্ন বিভাগের বিভিন্ন পদ মিলিয়ে মোট ২,৭২১ টি সরকারি পদে নিয়োগ করা হবে। মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগ করা হবে। সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে দীর্ঘ আলোচনার পরই এই নিয়োগ সংক্রান্ত সিদ্ধান্তটি নেওয়া হয়। সিদ্ধান্ত অনুসারে পরবর্তী পদক্ষেপ গুলি খুব তাড়াতাড়ি পালন করে দ্রুত নিয়োগ করা হবে বলেই সরকারি তরফে জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি বাঁকুড়ার পরিষেবা প্রদান অনুষ্ঠান থেকে মুখ্যমন্ত্রী বলে বসেন, রাজ্যের বেকার যুবক-যুবতীদের নিয়োগের ব্যাপারে রাজ্য পদক্ষেপ নিলেই তা ভেস্তে দিতে নাকি অন্যান্য বিরোধী দলগুলি চক্রান্ত করে! একই সাথে তিনি জানিয়ে দেন, ‘চাকরি আমরা দেবই। এবং, নিয়ম মেনেই দেব।’

রাজ্যে ৭২৮ জন গ্রন্থাগারিক নিয়োগের ছাড়পত্র

যে সব জেলার শূন্যপদে নিয়োগ হবে বলে এখনও অবধি খবর পাওয়া গেছে, তারমধ্যে সর্বোচ্চ সংখ্যক নিয়োগ হবে উত্তর ২৪ পরগনায়, যেখানে নিযুক্ত হবেন ৬০ জন কর্মী। এছাড়াও গ্রামীণ লাইব্রেরির জন্য পূর্ব বর্ধমানে ৫৫ জন এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনায় মোট ৫২ জনকে নিয়োগ করা হবে বলে জানানো হয়েছে। রাজ্যের গ্রামীণ গ্রন্থাগারে ৭২৮ জন গ্রন্থাগারিক নিয়োগেরও ছাড়পত্র দিয়েছে মন্ত্রিসভা। বর্তমানে রাজ্যে গ্রামীণ গ্রন্থাগারের সংখ্যা প্রায় ১৬০০ টি।

মাঝে একবার গ্রন্থাগারিক নিয়োগের কথা উঠলেও পরে তা নিয়ে আর কোনো আলোচনা করেননি মুখ্যমন্ত্রী, তবে এখন হাওয়া বেগতিক দেখে আবারও প্রসঙ্গটি উত্থাপন করে তিনি বলেন, মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী ইতিমধ্যেই নাকি সোমবার প্রতিটি জেলায় নির্দেশ পাঠিয়েছেন।

নিয়োগের জন্য কমিটি গঠন

এই নিয়োগের ক্ষেত্রে প্রতিটি জেলাশাসককে মাথায় রেখে সাতজনের কমিটি গড়া হবে। এই নিয়োগ প্রক্রিয়া দ্রুত শুরু এবং সম্পন্ন করা হবে। মূলত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে চেয়ারম্যান করে সাত সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হবে। তাঁরাই এই নিয়োগ কার্যকর করার সমস্ত কাজগুলি করবেন।

কৃষিদপ্তরে ১২২ টি নতুন পদের ছাড়পত্র

এদিকে কৃষিদপ্তরেও ১২২ টি নতুন পদ সৃষ্টির ছাড়পত্র দিল মন্ত্রিসভা। জানানো হয়েছে, পুরুলিয়ার বান্দোয়ানে এবং কালিম্পংয়ের আলগারায় দু’টি একলব্য মডেল আবাসিক স্কুল তৈরি করা হবে। এই ক্ষেত্রে শিক্ষক-অশিক্ষক মিলিয়ে নতুন পদ সৃষ্টি হবে ৭৪ টি। এবং এই পদগুলিতেও সত্ত্বর নিয়োগ করা হবে।

সূত্র অনুযায়ী জানা গিয়েছে খুব শীঘ্রই ঘোষনা মোতাবেক এই সমস্ত শূন্যপদ এবং দফতর গুলিতে নিয়োগের জন্য একে একে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হবে। আগামীতে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হলেই আমরা আমাদের এই কাজকর্ম ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনাকে জানিয়ে দেবো। 

বিঃদ্রঃ চাকরি এবং নতুন কোনো নিয়োগের আপডেট, কর্মসংস্থান আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে জয়েন হতে পারেন।

🔥 হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ: Join Now

এগুলিও পড়ুন 👇👇

ALSO READ :   পশ্চিমবঙ্গে 28,000 টাকা মাসিক বেতনের চাকরির সুযোগ, মোবাইলে আবেদন করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top